আজ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

লামায় গ্রাউসের আন্ত:ধর্মীয় সংলাপ

জাহিদ হাসান,বিশেষ প্রতিনিধি।।

ধর্মীয় ও সামাজিক সম্প্রীতি, ত্যাগ, সেবা, সহাবস্থান, পারস্পরিক সহনশীলতাসহ শ্রদ্ধাবোধের ওপর বান্দরবানের লামা উপজেলায় এক আন্ত: ধর্মীয় সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা গ্রাম উন্নয়ন সংগঠনের (গ্রাউস) উদ্যোগে ও ইউএনডিপি’র অর্থায়নে রবিবার দুপুরে পৌরসভার মধুঝিরিস্থ উপজেলা কার্যালয়ে এ সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়।
সরকারি মাতামুহুরী ডিগ্রি কলেজের আইসিটি বিষয়ক শিক্ষক মো. ফরিদ উল্ আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সংলাপে ইসলাম ধর্মের আলোকে লাইনঝিরি মোহাম্মদীয় ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা মুহাম্মদ ইব্রাহিম, হিন্দু ধর্মের আলোকে অন্তু চক্রবর্তী, বৌদ্ধ ধর্মের আলোকে দরদরী সুনন্দ বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ উপঞা ভিক্ষু ও খৃষ্টান ধর্মের আলোকে বিস্তারিত আলোচনা করেন নাজিরাম ত্রিপুরা পাড়া গীর্জার প্রচারক গুদাই চন্দ্র ত্রিপুরা।
গ্রাউসের সামাজিক সম্প্রীতি প্রকল্পের ফোকাল পার্সন মেহেরুন্নেছার সভাপতিত্বে সংলাপে প্রধান অতিথি ছিলেন- উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ মাহাবুবুর রহমান, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিল্কী রানী দাশ, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন, পৌরসভার কাউন্সিলর জাহানারা বেগম প্রমুখ।
এছাড়া সংলাপে ইমাম, ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য, শিক্ষক, সাংবাদিক, এনজিওকর্মী, ধমীয় প্রতিষ্ঠান প্রধান, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা অংশ গ্রহণ করেন।
সংলাপে ধর্মীয় নেতারা বলেন, প্রত্যেক মানুষের অন্তরে নিজ নিজ ধর্মীয় অনুভূতি থাকলে সমাজে কখনো অপরাধ সংঘটিত হত না। কারণ প্রত্যেক ধর্মেই নির্দেশনা আছে সম্প্রীতি, ত্যাগ, সেবা, সহাবস্থান, পারস্পরিক সহনশীলতা ও শ্রদ্ধা বোধ। কিছু কিছু মানুষের অন্তরে ধর্মীয় অনুভূতি না থাকার কারণে আজ সমাজে অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে। তাই প্রত্যেকের অন্তরে নিজ নিজ ধর্মীয় অনুভূতি লালন করতে হবে। তবেই সমাজ থেকে সব অপরাধ দূর করা সম্ভব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরও দেখুন