আজ ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

খুলশী থানা যুবলীগ কর্মী মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা

 
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটি নিয়ে সোস্যাল মিডিয়া চলছে তোলপাড় আর তৃণমূল কর্মীরা ফুঁসছে চাপা ক্ষোভে।
চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের ১ম সহসভাপতি আসাদুজ্জামান দিদারের সুপারিশে খুলশী থানা যুবলীগের সক্রিয় কর্মী (১৪৬ নং সিরিয়াল) মোহাম্মদ কালামকে স্বেচ্ছাসেবক দলের মহানগর কমিটিতে সহ যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক করায় খুলশী থানা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনগুলোর মধ্যে বিরুপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।
কালাম ছাড়াও দিদারের সুপারিশে এমন অনেককেই খুলশী থেকে কমিটিতে রাখা হয়েছে যারা কখনো কোনো রাজনৈতিক মিছিল মিটিং বা কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে নাই।
কম্পিউটার দোকানের মালিক থেকে শুরু করে চা বিক্রেতা পর্যন্ত টাকার বিনিময়ে উক্ত কমিটিতে স্থান করে নিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় বিএনপির সাথে সংশ্লিষ্টরা।
দীর্ঘদিন যাবৎ বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত আছেন এমন অনেকের সাথে কথা বলে জানা গেছে দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর ১৭১ সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটি ঘোষণা দেওয়া হলেও অনেক ত্যাগী পরিক্ষিত সক্রিয় কর্মীর যায়গা হয় নাই বা সঠিক মূল্যায়ন করা হয় নাই। টাকার বিনিময়ে কমিটিতে পদ দেওয়ার অভিযোগ আছে রাশেদ-বুলুর এই কমিটির বিরুদ্ধে।
১৭১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটিতে ২৬ জন সেওএন্ডএফ ব্যাবসায়ী (দুই তিন জন ছাড়া কেউই রাজনীতির সাথে জড়িত না) বিভিন্ন পদে রাখা নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়েছে এই কমিটির গ্রহনযোগ্যতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরও দেখুন