আজ ৪ঠা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ধর্মপাশায় সেলবরষ ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি সোনা মিয়ার বিরুদ্ধে ব্যাক্তি মালিকানাধীন রেকর্ডীয় জায়গা দখলের অভিযোগ

 
ধর্মপাশা প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি ও ওই ইউনিয়নের উত্তর বীর গ্রামের বাসিন্দা আবু তাহের ওরফে সোনা মিয়ার বিরুদ্ধে স্থানীয় বাদশাগঞ্জ পশ্চিমবাজারে থাকা প্রায় এক শতক পরিমান ব্যক্তি মালিকানাধীন রেকর্ডীয় জায়গা দীর্ঘদিন ধরে দখলে রয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সুবিচার চেয়ে একই গ্রামের বাসিন্দা ভুক্তভোগী আনোয়ার হোসেন ওরফে আনার মিয়া চলতি বছরের ৯ নভেম্বর সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।
সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কাছে দেওয়া লিখিত অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পাইকুরাটি ইউনিয়নের বাদশাগঞ্জ পশ্চিমবাজারে থাকা একটি পাকাঘরসহ দুটি দলিলের মাধ্যমে ক্রয়সূত্রে প্রায় দুই বছর আগে মোট তিনশতক ৩৩সহাস্রাংশ রেকর্ডীয় ভূ’মির মালিক হন আনোয়ার হোসেন ওরফে আনার মিয়া। যার জেএল নং ৩৭,দাগ নং ৭৯৮,খতিয়ান নং ৭৪৬, মৌজা-বউলাম,ভূমির পরিমাণ ৩শতক ৩৩সহহাস্রাংশ। ওই রেকর্ডীয় ভূ’মি সংলগ্ন উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ও ওই ইউনিয়নের উত্তরবীর গ্রামের বাসিন্দা মো.আবু তাহের ওরফে সোনা মিয়ার রেকর্ডীয় জায়গা রয়েছে। ওই বিএনপি নেতা এলাকায় খুবই প্রভাবশালী হিসেবে পরিচিত। স্থানীয় ভাবে বছর খানেক আগে মাপজোক করে সেখানে দেখতে পাওয়া যায় যে, আবু তাহের ওরফে সোনা মিয়া একই গ্রামের বাসিন্দা আনোয়ার হোসেন ওরফে আনার মিয়ার মালিকানাধীন রেকর্ডীয় প্রায় এক শতক পরিমান জায়গা অবৈধভাবে দখলে থেকে সেখানে ব্যবসা কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন। প্রায় একবছর আগে ওই জায়গাটি ছেড়ে দেওয়ার জন্য ওই বিএনপি নেতাকে মাস খানেক সময় দেওয়া হয়। কিন্তু প্রায় ১১মাস অতিবাহিত হলেও এখনো তিনি ওই জায়গা ছাড়েননি। তিনি খুবই প্রভাবশালী ও উচ্ছৃঙ্খল প্রকৃতির লোক হওয়ায় এখনও অবৈধ ভাবে দখলে থাকা জায়গায় বহাল তবিয়তে রয়েছেন। এমতাবস্থায় আমাকে ও আমার লোকজনদেরকে ওই বিএনপি নেতা যে কোনো সময় রাস্তাঘাটে কিংবা যে কোনো স্থানে একাকী পেয়ে তিনি ও তাঁর ভাই ভাতিজাদের নিয়ে আমাকে গুম করাসহ প্রাণে মেরে ফেলে দেওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। বিএনপি নেতা আবু তাহের ওরফে সোনা মিয়া ও তাঁর লোকজন উচ্ছৃঙ্খল প্রকৃতির লোক হওয়ায় সে প্রভাব খাটিয়ে অনেকেরই জায়গা সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল করে রয়েছেন। তাঁর এহেন কর্মকাণ্ডে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা মোকদ্দমাও হয়েছে। অনেকের কাছ থেকে তিনি টাকা ধার এনে মেরে দিয়েছেন। এ নিয়ে প্রতিবাদ করলে নানাভাবে লাঞ্ছিত ও অপমানিত হওয়ার ভয়ে কেউ তাঁর অন্যাযের প্রতিবাদ করার সাহস পায় না।
তবে বিএনপি নেতা আবু তাহের ওরফে সোনা মিয়া তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন,আমার বিরুদ্ধে আনার মিয়ার আনীত অভিযোগ মিথ্যা,বানোয়াট ও ভিত্তিহীন।তিনি আরও বলেন,আমার সঙ্গে আনার মিয়ার জায়গা নিয়ে কোনোরকম বিরোধ নেই। তার জায়গা আমার দখলে নেই।উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে সে আমার বিরুদ্ধে এ ধরণের অপবাদ রটাচ্ছে। এ ছাড়া আমাকে ও আমার আত্বীয় স্বজনকে সে নানাভাবে হয়রানি করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে।
সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ সাংবাদিকদের বলেন বলেন,অভিযোগটি এখনো আমার নজরে আসেনি।অভিযোগটি পেলে বিধি মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরও দেখুন