আজ ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মধুপুরে এক সন্তানের জননীর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্বহত্যা

 
মোঃ আঃ হামিদ মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ
টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার কুড়ালিয়া ইউনিয়নের কুড়ালিয়া (বাগবাড়ি)গ্রামের তুলা মিয়ার বড় ছেলে মনি মিয়ার স্ত্রী এক সন্তানের জননী সালমা বেগম (২৮)সোমবার(২৩ নভেম্বর) বিকেলে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা যায়। সে মধুপুর পৌর এলাকার পুন্ডুরা গ্রামের কোরবান আলীর মেয়ে। পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, নিহত সালমা বেগম প্রায় দুই মাস যাবৎ কানের রোগে ভুগছিলেন। মধুপুরে বিভিন্ন ডাক্তারের চিকিৎসা নিয়ে কোন পরিবর্তন না দেখে কিছু দিন আগে তার সুচিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ কানের ডাক্তারের পরামর্শ নেন। তিনি ১৪ দিনের চিকিৎসাপত্র দেন এবং ১৫ দিন পর পুনরায় দেখা করার পরামর্শ দেন। এর ২দিন অতিবাহিত হতে না হতেই তীব্র যন্ত্রণা সইতে না পেড়ে তার নিজ ঘরের ধর্নার সাথে রশি বেঁধে ফাঁস টানিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে আত্বীয়স্বজন ও পরিবারের লোকজনের ধারনা। তার স্বামী মনি মিয়া চিকিৎসার টাকা জোগাড় করতে মুক্তাগাছার এক ইট ভাটায় কর্মরত ছিলেন। মধুপুর থানার লাউফুলা ফাঁড়ির এ এস আই আব্দুল ওয়াহাব বলেন- ধারণা করা হচ্ছে ফাঁসিতে ঝুলেই মারা গেছেন। তিনি বলেন ময়নাতদন্তের পরই বিস্তারিত জানা যাবে। এ ব্যাপারে মধুপুর থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরও দেখুন