আজ ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আড়ানী পৌরসভাকে মডেল পৌরসভায় রুপান্তরিত করা হবে- মেয়র মুক্তার

 
লিয়াকত রাজশাহী ব্যুরো:
রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌরসভা ২০০৬ ইং সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০১২ইং সালে এই পৌরসভা ‘খ’ শ্রেণিতে উন্নিত হয়। ওয়ার্ড সংখ্যা ৯টি, হোল্ডিং সংখ্যা ৩৮৯৬, নিবন্ধিত জনসংখ্যা ২০৩১০, সর্বমোট ভোটার সংখ্যা ১৩০০১ জন। এর মধ্যে পুরুষ-৬৫৪৭ ও নারী ৬৪৫৪ জন। এই ভোটারগণ আসছে ১৬ জানুয়ারী ২০২১ সালে তাদের পছন্দের মেয়রকে নির্বাচিত করবেন। আর এই নির্বাচন নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা-কল্পনা। খোদ সরকারী দলেই প্রার্থী রয়েছেন একাধিক। ইতোমধ্যে তারা নমিনেশন নেয়ার জন্য দৌড়ঝাপ শুরু করেছেন।
এর মধ্যে দলীয় নমিনেশন দৌড়ে সব থেকে বেশী এগিয়ে বর্তমান মেয়র মুক্তার আলী। এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার উন্নয়ন দৃশ্যমান। আমি আড়ানী পৌর মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে গত ৫ বছরে অসংখ্য উন্নয়ন করেছি এবং বেশ কিছু উন্নয়ন প্রকল্প প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। দল যদি আমাকে আরেকবার মনোনয়ন দেন তাহলে আমি আমার অসমাপ্ত কাজ গুলো বাস্তবায়ন করবো ইনশাআল্লাহ। সেইসাথে এই পৌরসভাকে ‘ক’ শ্রেণিতে উন্নয়নসহ একটি মডেল পৌরসভা হিসেবে গড়ে তুলবেন বলে তিনি প্রতিশ্রুতি দেন।
মেয়র বলেন, আগামী ১৬ জানুয়ারী আড়ানী পৌর নির্বাচন। এখানে সরকারি দল থেকে যে ৮ জন মনোনয়ন চেয়েছেন তার মধ্যে তৃণমুলের মতামত এবং উন্নয়নের অগ্রধারায় প্রার্থী নির্বাচন করতে হলে আমার কোন বিকল্প নাই। আমি ২০১৫ সালে বিপুল ভোটে আড়ানী পৌর মেয়র নির্বাচিত হই। এর আগে প্রয়াত মেয়র মিজানুর রহমান মারা যাওয়ার পর আমি ১ নং প্যানেল মেয়র হিসাবে (ভারপ্রাপ্ত) মেয়র এর দায়িত্ব পালন করি। তার আগে আমি পর-পর দুইবার আড়ানী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হয়ে ছিলাম। সেদিক থেকে স্থানীয় সরকারের কাজ এবং দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে আমার খুব ভাল অভিজ্ঞতা রয়েছে।
তিনি আরো বলেন, বিশ্বব্যাপি মাহমারী করোনার কারনে উন্নয়নমূলক কাজ করতে কিছুটা বিঘ্ন ঘটেছে। তবে তিনি চেষ্টা করেছেন চলমান রাখার জন্য । করোনার কারণে অন্যান্য স্থানের ন্যায় তাঁর পৌরসভাতেও অনেক মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েন। এই সকল কর্মহীন মানুষের পাশে তিনি দাঁড়িয়েছেন। এসময়ে তিনি সরকারি সহায়তা ছাড়াও তাঁর ব্যক্তিগত তহবিল থেকে মানুষের দ্বারে-দ্বারে খাবার পৌঁছেছে দিয়েছেন।
এ ছাড়াও পৌর এলাকায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন, রাস্তাঘাট নির্মান, কাল-ভাট ব্রীজ তৈরী ,রাতের আঁধার থেকে জনগণকে আলোতে রাখতে পৌর এলাকায় লাইটিং এর ব্যবস্থা, হাট-বাজারের উন্নয়ন ও স্যানিটেশনসহ অসংখ্য উন্নয়নমূলক কাজ দৃশ্যমান রয়েছে। এছাড়াও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান যেমন মসজিদ, মন্দির. শ্বশান ও কবরস্থানের উন্নয়ন করেছেন। বর্তমানে কুয়েত এবং জলবায়ু ফান্ডের অর্থায়নে ১৬ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলমান। জনগণ পৌর এলাকায় উন্নয়নের কথা চিন্তা করে আবারও তাদের মুল্যবান রায় তাঁকে দেবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন তিনি।
মেয়র আরো বলেন, তিনি নারী উন্নয়নে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছেন। তাদের প্রশিক্ষনের মাধ্যমে কর্মক্ষম করে গড়ে তুলছেন। মেধাবী শিক্ষার্থীদের বিশেষ সম্মাননা প্রদান করে আসছেন। সেই সাথে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছেন। এছাড়াও সরকারের সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর কর্যক্রম সততা ও নিষ্ঠার সাথে করেছেন। বয়স্কভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধি ভাতা ও ভিজিএফ চাল তিনি সুষ্ঠুভাবে বিতরণ করছেন। সেইসাথে করোনা থেকে জনগণকে বাঁচাতে সচেতনতামূলক কার্যক্রম এবং তাদের মধ্যে মাস্ক, সাবান ও হ্যান্ডস্যানিটাইজার ইত্যাদি বিতরণ করেন। এখনও এই কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন বলে উল্লেখ করেন তিনি।
তিনি আরো বলেন, তাঁর পৌরসভায় কোন প্রকার সন্ত্রাসী কর্মকান্ড নেই। খুন ও ধর্ষন নেই বললেই চলে। এছাড়াও বাল্য বিবাহ ও যৌতুক প্রথা প্রতিরোধ করা হয়েছে। সেইসাথে নেই কোন রাজনৈতিক কলহ। পৌরসভার সবাইকে নিয়ে মিলে মিশে বসবাস করছেন এবং সেবা করছেন।
মেয়র আরো বলেন, আজ যারা দলীয় মনোনয়ন চেয়ে উপজেলা আ’লীগের বর্ধিত সভায় ওয়াদা করছেন দল যাকে মনোনয়ন দিবে সবাই সেটি মেনে নিবেন। একই ওয়াদা ২০১৫ সালেও হয়েছিল। কিন্তু সে সময় অনেকেই তাঁর বিপক্ষে কাজ করেছেন এবং গোপনে বিএনপিকে সমর্থন দিয়েছে। কিন্তু তার পরেও লাভ হয়নি। তাঁর জয়প্রিতা থেকে জনগণ তাঁকে তাদের সু-চিন্তিত মতামতের উপর ভিত্তি করে সঠিক রায় প্রদান করেন এবং তিনি মেয়র নির্বাচিত হন।
আসছে নির্বাচন প্রসঙ্গে মেয়র মুক্তার আলী বলেন, আড়ানীকে দুর্নীতি ও চাঁদা মুক্ত করেছেন তিনি। এছাড়াও সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ী সুন্দর ভাবে ব্যবসা করে জীবন জীবিকার পথ প্রশস্ত করেছেন। এতগুলো কাজ দেখে দল অবশ্যই তাঁকে মনোনীত করবেন। সেইসাথে জনগণ তাই দল-মত-নির্বিশেষে তাঁকে ভোট দিয়ে পুণরায় মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করবেন বলে তিনি আমা ব্যক্ত করেন। সেইসাথে আসছে নির্বাচনে আবারও তাঁকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করার অনুরোধ করেন বর্তমানর মেয়র মুক্তার আলী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরও দেখুন