আজ ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নওগাঁয় বসতবাড়ী বিক্রি না করায় অবরুদ্ধ এক দরিদ্র পরিবার

 
নুরুজ্জামান লিটন,জেলা প্রতিনিধি নওগাঁঃ
“শুধু বিঘে দুই ছিল মোর ভুঁই আর সবই গেছে ঋণে।
বাবু বলিলেন, ‘ বুঝেছ উপেন, এ জমি লইব কিনে। ‘
কহিলাম আমি, ‘ তুমি ভূস্বামী, ভূমির অন্ত নাই।
চেয়ে দেখো মোর আছে বড়ো – জোর মরিবার মতো ঠাঁই”।
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের এ-ই দুই বিঘা কবিতার মতই বসতবাড়ির সম্বলটুকু কিনে নিতে চেয়ে তা না পেয়ে বাড়ির তিনপাশে ছয়ফুট উঁচু ইটের প্রাচীর আর এক পাশে বাড়ির দেয়াল টেনে বাড়িটি চারপাশের প্রাচীরের মাঝখানে ঘিরে রেখে অবরুদ্ধ করে রেখেছে এক প্রভাবশালী সওদাগর।
উক্ত ঘটনাটি ঘটেছে নওগাঁ জেলার রাণীনগর উপজেলার ঘোষগ্রাম নামক গ্রামে।
বাড়িটির চারপাশে ইটের প্রাচীরগুলো নির্মাণ করার ফলে বাড়িতে প্রবেশ করতে না পেরে পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন দরিদ্র রিপন উদ্দিন শাহ।
ভুক্তভোগী পরিবার জানিয়েছেন, রাণীনগরের ঘোষগ্রামের ইয়াছিন আলীর ছেলে রিপন উদ্দিন শাহ পৈত্রিক সম্পত্তির উপর প্রায় ১০ বছর আগে থেকে টিন সেড বাড়ি তৈরি করে বসবাস করছেন। তার বাড়ির পশ্চিমপাশে বারিক সরদারের বাড়ি। তবে এক পাশে বাড়ি হলেও রিপনের বাড়ির চারপাশেই রয়েছে বারিক সরদারের জমি। রিপনের এ জায়গাটি কেনার জন্য দীর্ঘদিন ধরে তিনি চেষ্টা করছিলেন। তবে রিপন তাতে রাজি হননি।
গত বছরের মার্চ মাসে বেড়াতে যায় রিপনের পরিবার। পরে বাড়িতে ফিরে এসে তারা দেখেন বাড়ির চারপাশে ৬ ফুট উঁচু করে ইটের প্রাচীর নির্মাণ করা হয়েছে এবং বাড়িতে প্রবেশের কোন পথই খোলা নেই। বারিক সরদারের বাড়ির দিকে একটি দরজা থাকলেও সেখানে টিন দিয়ে আটকানো।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আব্দুল বারিক সরদার ‘প্রাচীর কেন দেয়া হয়েছে’ সে ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে চাননি।
এ বিষয়ে রানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহিন বলেন, ‘এটি অমানবিক বিষয়।
২৬ ডিসেম্বর শনিবার, বিকেলে মৌখিক অভিযোগ পেয়েছি। উপজেলা প্রশাসন থেকে সহযোগিতা পেলে ভুক্তভোগী পরিবারকে আমরা পুলিশি সহায়তা দিতে পারব।’
রানীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল-মামুন এ বিষয়ে বলেন, ‘ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। জমির কাগজপত্র নিয়ে আব্দুল বারিক সরদারকে অফিসে আসতে বলা হয়েছিল কিন্তু তিনি আসেননি। দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরও দেখুন