আজ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

 
আসিফ জামান, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :
করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় ঠাকুরগাঁওয়ে পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে স্বেচ্ছাসেবকলীগ।
সোমবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নজমুল হুদা শাহ এ্যাপোলোর উদ্যোগে ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহযোগিতায় শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে এই শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।
প্রধান অতিথি হিসেবে শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আ.স.ম গোলাম ফারুক রুবেল।
এসময় ঠাকুরগাঁও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নজমুল হুদা শাহ এ্যাপোলোর সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন, ঠাকুরগাঁও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ইকরামুল হক একরাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান সুনাম, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াফু তপু, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর ইসলাম তালাশ প্রমুখ।
শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে ঠাকুরগাঁও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
সভা শেষে ঠাকুরগাঁও পৌর এলাকার ৮৫ জন পরিচ্ছন্নকর্মীদের মাঝে কম্বল, গামবুট ও হ্যান্ড গ্লাভস বিতরণ করা হয়।
ঠাকুরগাঁও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নজমুল হুদা শাহ এ্যাপোলো বলেন, করোনা ভাইরাসের এই সময়ে জীবনের মায়া না করে শহর পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজ করেছেন পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা। তাদের কথা কেউ চিন্তা না করলেও স্বেচ্ছাসেবকলীগ তাদের পাশে আছে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের মাঝে আজ শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।
শীতবস্ত্র পেয়ে পরিচ্ছন্নতাকর্মী সুবাশ চন্দ্র বলেন, শহর পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজ সবসময় আমরা করি। ময়লা কাপড় নিয়েই আমাদের সবসময় চলতে হয়; এতে নানা ধরনের রোগে আক্রান্ত হই আমরা। আর আমাদের কথা কেউ চিন্তাও করেনা। পাশাপাশি পর্যাপ্ত পরিমাণ শীত নিবারনের কাপড় না থাকায় অনেক কষ্ট করতে হয়। সেই বিষয়টি অনুভব করে সেচ্ছাসেবক লীগের নেতা এ্যাপোলো আমাদেরকে শীতবস্ত্র দিয়েছেন; এতে আমরা অনেক খুশি।
ঠাকুরগাঁও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ইকরামুল হক একরাম বলেন, ঠাকুরগাঁওয়ের নানা সংকটময় মুহুর্তে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা এ্যাপোলো করোনা কাল থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন। সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তারই ধারাবাহিকতায় আজকে আমরা দেখলাম তার আরেকটি ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। যারা শহর পরিস্কারের কাজে নিজেদেরকে নোংরা করে তাদের পাশে এ্যাপোলো দাঁড়িয়েছে। যেটি মহানুভবতার উদাহরণ ও দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। এ থেকে সমাজে যারা বৃত্তশালী মানুষ রয়েছেন তাদের জন্য অনুকরনীয় হয়েও থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরও দেখুন