আজ ১১ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

সন্দ্বীপ সারিকাইতে সিরাজুদ্দৌলা খোকনের ৪ লক্ষ টাকার গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

 
রিয়াদুল মামুন সোহাগঃ
স্থানীয় প্রভাবশালীদের যোগ সাজোসে সন্দ্বীপ সারিকাইত ইউনিয়নের সিরাজুদৌলা খোকনের বাড়ীর প্রায় ৪ লক্ষ টাকার গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।অভিযুক্তরা হলেন আলি আকবর ডিপ্টি,মোহাম্মদ মামুন ও মোহাম্মদ আকবর।
এ ব্যাপারে খোকনের পক্ষে তার আত্মীয় সোহাগ বাদী হয়ে সন্দ্বীপ আদালতে একটি সি আর মামলা দায়ের করেন।
উক্ত মামলায় আসামীরা হলেন আলী আকবর ডিপটি(৫০),পিতাঃ মৃত ওসমান গনি,সাত্তার সেরাং এর বাড়ী,২য় আসামি মোহাম্মদ মামুন(৩০),পিতাঃ মৃত মোদাচ্ছের,আমিন উল্যাহ সুকানীর বাড়ী,৩য় আসামি মোহাম্মদ আকবর(২৫),পিতাঃ মৃত মানিক,মনাফ মিস্তির বাড়ি।সারিকাইত ০৬নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা।
বর্তমানে মামলা সন্দ্বীপ থানা তদন্তাধীন রয়েছে।
জমীর মালিক মোহাম্মদ খোকন বিদেশ থেকে মোবাইল ফোনে জানান আমরা এখানে কেউ থাকিনা বলে স্থানীয় প্রভাবশালীদের প্রভাবে আলী আকবর ডিপটি তার লোকজন নিয়ে আমার জায়গার প্রায় ৪ লক্ষ টাকার গাছ ও আমার পুকুর থেকে মাছ ধরে নিয়ে যায়। এতে আমার লোক বাঁধা দিলে তাদের মারধর করে।
অপরদিকে অভিযুক্ত ডিপটির সাথে যোগাযোগ করলে তিনি গাছ কেটে নেওয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন আমি স্থানীয় চেয়ারম্যান পনির,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাঈন উদ্দিন মিশন সহ এলাকার লোকজনের সাথে কথা বলে গাছ কেটেছি।তারা গাছ কাটার অনুমতি দিয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন আমাকে চেয়ারম্যান ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অনুমতি দিয়েছেন।গাছ সিরাজের হলেও গাছের গোড়া আমার জায়গায় এসে আমার সমস্যা সৃষ্টি করছে তাই আমি গাছ কেটেছি।
এই বিষয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান এর সাথে কথা বললে তিনি জানান একজনের গাছ আরেক জনকে কাটার অনুমতি আমি কেন দিতে যাবো।আমি বলেছি গাছের মালিক উপস্থিত না হলে আমার কিছু করার নেই।আগে গাছের মালিক কে হাজির করেন।আমি তাছ কাঁটার জন্য বলি নাই।
বিজ্ঞ আদালতের কাছে এ ঘটনার ন্যায় বিচার চাই ভোক্তভোগিরা।তারা আরো দাবি করেন আমাদের সাথে কোন রকম যোগাযোগ ছাড়াই আমাদের প্রায় ৪ লক্ষ টাকার গাছ ও পুকুরের মাছ ধরে নিয়ে যায় তারা।আমরা এই বিষয়ে ন্যায় বিচার চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরও দেখুন