আজ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আফগানিস্তানে তালেবান প্রতিরোধে বিক্ষিপ্ত বিক্ষোভ

সম্প্রতি আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল দখল নিয়ে দেশটির ক্ষমতায় আসে তালেবান। কিন্তু ক্ষমতায় এসে আফগান জাতীয় পতাকা নামিয়ে তালেবানের পতাকা উত্তোলন নিয়ে দেশটিতে বিক্ষোভের মুখে পড়েছে তালেবান। কাবুলের ১৫০ কিলোমিটার উত্তরের পাঞ্জশির উপত্যকায় তালেবান গোষ্ঠীকে প্রতিরোধের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

তালেবানের কাবুল দখলের মধ্যে দেশত্যাগ করা ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ এবং প্রখ্যাত এক তালেবানবিরোধী যোদ্ধার ছেলে আহমাদ মাসউদের নেতৃত্বে প্রতিরোধ গড়ে তোলা হচ্ছে বলে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ জানিয়েছেন।

মস্কোয় এক সংবাদ সম্মেলনে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তালেবান এখনো পুরো আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেনি। পাঞ্জশিরে তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা হচ্ছে।

এর আগে জালালাবাদসহ পূর্বাঞ্চলীয় কয়েকটি শহরে জাতীয় পতাকা নিয়ে বুধবার তালেবান বিরোধী বিক্ষোভে অন্তত দুজন নিহত হলেও পরদিনই বৃহস্পতিবার রাজধানী কাবুলেও একই ধরনের মিছিল হয়েছে।

আফগানিস্তানের স্বাধীনতা দিবস ১৯শে আগস্ট। এই উপলক্ষে জাতীয় পতাকা নিয়ে কাবুলের মিছিলে গুলি না চালালেও দ্রুত তা ছত্রভঙ্গ করে দেয় তালেবান যোদ্ধারা।

তবে পূর্বাঞ্চলীয় শহর আসাদাবাদে স্বাধীনতা দিবসের এক জমায়েতে লোকজন জাতীয় পতাকা ওড়ালে তালেবান গুলি চালায় বলে প্রত্যক্ষদর্শীদের উদ্ধৃত করে খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

জাতীয় পতাকা সরিয়ে সেখানে তালেবানের সাদা-কালো পতাকা উঠিয়ে দেওয়ার প্রতিবাদে রাস্তায় এই বিক্ষোভের মাত্রা তেমন কিছু না হলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় বহু আফগান সোচ্চার হয়েছেন।

পাশাপাশি, কাবুল থেকে পালিয়ে যাওয়া আফগান ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ তার গোপন আস্তানা থেকে ঘোষণা করেছেন দেশের সংবিধান অনুযায়ী তিনিই এখন আফগানিস্তানের তত্ত্বাবধায়ক প্রেসিডেন্ট এবং তিনি তালেবানের সরকার মানেন না বলেও ঘোষণা দিয়েছেন। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরও দেখুন