আজ ১১ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

রাজশাহীতে শশুরের দ্বারা পুত্রবধুকে সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্টের আবেগঘন স্ট্যাটাস ফাঁস

নিজস্ব প্রতিনিধি :

রাজশাহীতে সাংবাদিকতার ছদ্মবেশে জুলুর সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজী “বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দিয়েও প্রতিকার পাচ্ছেনা ভুক্তভোগীরা” শিরোনামে একাধিক দৈনিক ও অনলাইন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর রাজশাহীর নিবন্ধন বিহীন অনলাইন (খবর২৪ ঘন্টা) ডটকম এর চেয়ারম্যান: নজরুল ইসলাম জুলুর থলের বিড়াল বের হতে শুরু করেছে। এবার তার বিরুদ্ধে তার বড় ছেলের দ্বিতীয় স্ত্রী ইলমা তার শশুর নজরুল ইসলাম জুলু দ্বারা সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্টের আবেগঘন ফেসবুক স্ট্যাটাসের বর্ননা দিয়েছেন। গত ১৩ই আগস্ট বিকেলে কয়েকটি পত্রিকার প্রতিবেদকদের সাথে নাটোরের একটি রেস্টুরেন্টে বসে কৌশলে আলাপকালে শশুরের দ্বারা সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্টের আবেগঘন ফেসবুক স্ট্যাটাসের বর্ননা ও স্ট্যাটাসের স্থিরচিত্রগুলো দেন জুলুর পুত্রবধু ইলমা।

ইলমা বলেন, রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানা এলাকার খুলিপাড়া মহল্লার খবর২৪ঘন্টা ডটকম এর চেয়ারম্যান: নজরুল ইসলাম জুলুর বড় ছেলে তার পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক: নাজমুল ইসলাম জিমের সাথে ফেসবুকে আলাপ। পরে পরিবারের সম্মতিতে গত ২০১৯সালের ১৮ই নভেম্বর বিয়ে হয় তাদের। বিয়ের পর থেকে তাকে (ইলমাকে) কোন মোবাইল ব্যাবহার করতে দিতেন না তারা। পরিবারের সাথে কথা বলতে চাইলে তার শশুর সাংবাদিক জুলু বাসায় আসলে তার মোবাইলের মাধ্যমে পরিবারের সাথে কথা বলতে হতো তাকে। পরে পরিবারের সাথে আলাপের রেকর্ডগুলো শুনে দোষ বের করে তিনি আমার ওপরে অত্যাচার করতো। তার ছেলে সব জানতো।

ইলমা আরো বলেন, আমি আমার স্বামীকে নিয়ে বেশ সুখেই ছিলাম। আমাদের দাম্পত্য জীবন অনেক সুখের ছিল! কিন্তু এই লোকটার (সাংবাদিক জুলু)’র কু-নজর বাজে আচরণ তা ভেঙ্গে তছনছ করে দিয়েছে। তার জলজ্যান্ত বউ থাকতে প্রতিনিয়ত আমাকে দিয়ে মাথায় তেল দিয়ে নিতো, তার পায়ে তেল মালিশ করে দিতে হতো আমাকে। আমি শশুরকে বাবা হিসেবে দেখেছি! আমি এগুলো পজিটিভলি নিয়েছিলাম। কিন্তু আমি বুঝতে পারিনি যে এই লোকটির মধ্যে একটি জানোয়ার লুকিয়ে আছে।

ইলমা বলেন, সত্যিকথা বলতে আমার শশুর (সাংবাদিক জুলু) আমাকে দিয়ে তার শরীরে স্পর্শ করিয়ে অনুভতি নিতেন। সর্বশেষ গতবছরে আমার শশুর তার স্ত্রী আমার শাশুরীকে নিচে পাঠিয়ে আমাকে ইসারা দিয়ে ডেকে তার রাজকীয় (সখের বাড়ি) নামক বাড়িসহ অনেক কিছু লিখে দিতে চেয়ে সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্ট করতে চেয়েছিলেন। এ সময় আমি চিৎকার করলে এলাকার প্রতিবেশিরা বাড়ির নিচে জড়ো হয়ে গিয়েছিলো। পরে বোয়ালিয়া মডেল থানার দুইজন পুলিশ সদস্য এসে সবকিছু শুনেন। এ সময় আমার শশুর আমাকে ও আমার স্বামীকে সাদা কাগজে সাক্ষর করতে বললে আমি তা না করে পুলিশ সদস্যদের মাধ্যমে বের হয়ে প্রথমে আমার স্বামীর তেরোখাদিয়া এলাকার মামার বাসায় থাকি। পরের দিন তাদের সহযোগীতায় নাটোরে ফিরে আসি। নাটোরে এসে আমার স্বামী নাজমুল ইসলাম জিমকে প্রথমে কাজি অফিসের মাধ্যমে ও পরে আদালতের মাধ্যমে ৭-নভেম্বর ২০২০সালে তালাক দেই।

জানতে চাইলে খুলিপাড়া মহল্লার এলাকাবাসীরা বলেন, আমাদের মহল্লায় নজরুল ইসলাম জুলুর মতো এমন নোংরা প্রকৃতির লোক আর একটা খুজে পাবেন না। সাংবাদিকতার আড়ালে এমন কোন নোংরা কাজ নেই যা জুলু করেননি। বহুকাল থেকে সে সাংবাদিকের ছদ্মবেশে শহরে বসবাসরত লোকজনদের টার্গেট করে সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজী করে অর্থ উপার্জনে নেমেছে। সর্বশেষে নিজের ছেলের বৌকেও সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্ট করতে চেয়েছিলেন জুলু। সেদিন তার ছেলের বৌ এর চিৎকারে আমরা এলাকাবাসিরা জড়ো হয়েগেলে সে কৌশলে পুলিশ ডাকে তার বাসায়। পরে অনেক রাতে দুইজন পুলিশ সদস্যর সাথে তার ছেলের বৌ ইলমা বেরিয়ে যায়। তার পরে কি হয়েছে জানেন না বলে জানান তারা।

এ বিষয়ে খবর২৪ঘন্টা ডটকম এর নির্বাহী সম্পাদক নাজমুল ইসলাম জিমের পিতার বিরুদ্ধে তার দ্বিতীয় স্ত্রী ইলমার ফেসবুকে সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্টের আবেগঘন স্ট্যাটাসের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তিনি পত্রিকার প্রতিবেদকে বলেন, এটি এক বছর আগের ঘটনা। এখন পর্যন্ত কোথাও সেটি প্রকাশ পেলনা আপনারা কোথায় পেলেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে প্রতিবেদক জানান, আপনার দ্বিতীয় স্ত্রী ইলমার সাথে গত মাসে এক সাক্ষাতে তিনি এমন কথাগুলো বলেছেন। সেই সাথে আপনার পিতা নজরুল ইসলাম জুলু দ্বারা সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্টের আবেগঘন স্ট্যাটাসের স্থিরচিত্র আমাদের দিয়েছেন যা আমাদের অফিসে সংরক্ষত আছে এমন কথা বলতেই তিনি তরিঘড়ি করে ফোন কেটে দেন। পরে কয়েকবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এ বিষয়ে খবর২৪ঘন্টা ডটকম এর চেয়ারম্যান: নজরুল ইসলাম জুলুকে তার বিরুদ্ধে পুত্রবধু ইলমাকে সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্টের আবেগঘন ফেসবুক স্ট্যাটাসের বিষয়ে পত্রিকার প্রতিবেদক জিজ্ঞাসা করলে তিনি পত্রিকার সম্পাদকের সাথে কথা বলতে চেয়ে ফোন কেটে দেন।

নিচে শশুরের দ্বারা পুত্রবধুকে সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্টের আবেগঘন স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য হুবহুতেুলে ধরা হলো :-

আমি পৃথিবীতে অনেক খারাপ মানুষ দেখেছি কিন্তু আমার শ্বশুর নজরুল ইসলাম (জুলু) উনার চাইতে খারাপ মানুষ আরেকটি দেখিনি। সে আমার উপর নানা রকম অত্যাচার করেছে। তার ছেলে সব জানে কিন্তু তার ছেলে বউ সবাই তার টাকার কাছে বন্দী। আজ টাকার কাছে ভালোবাসা মূল্যহীন, আমার উপর ঘটে যাওয়া অন্যায় গুলো বিচার আমি পাব না। তার কাছে প্রশাসনিক ক্ষমতা আছে তার কথায় নাকি রাজশাহীর প্রশাসন কাঁপে? আজ একজন সাধারণ ভুয়া সাংবাদিক এতটা দাম আমার জানা ছিল না। আমার যদি মৃত্যু হয় তার জন্য একমাত্র দায়ী থাকবে আমার শ্বশুর। ফুললি ক্যারেক্টার লেস একজন মানুষ সে ।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে তিনি আরো লেখেন, আমি আমার স্বামীকে নিয়ে বেশ সুখেই ছিলাম আমাদের দাম্পত্য জীবন অনেক সুখের ছিল কিন্তু এই লোকটার কু-নজর বাজে আচরণ তার সেবা-যত্ন আমার করতে হবে। তার জলজ্যান্ত বউ থাকতে আমাকে দিয়ে পা টিপিয়ে নিত, মাথায় তেল দিয়ে নিতো প্রতিদিন তার পায়ে তেল মালিশ করে দিতে হতো। আমি শশুরকে বাবা হিসেবে দেখেছি আমি এগুলো পজিটিভলি নিয়েছি। আমি আমার সংসার করতে চেয়েছি কিন্তু আমি বুঝতে পারিনি যে এই লোকটির মধ্যে একটি জানোয়ার লুকিয়ে আছে।

একচুয়ালি সত্যিকথা বলতে সে আমাকে দিয়ে তার শরীরে স্পর্শ করে অনুভতি নেয়। তার আমার ওপরে খারাপ নজর ছিল এবং আমার স্বামী জিম এর প্রথম বউ চলে গেছে সেও একই কথা বলেছে যে তার শ্বশুর তাকে দিয়ে ঘাড় মালিশ করে নিতো। আর আমাদের প্রাইভেসি বলে কিছুই ছিলনা। আমার শ্বশুর যখন তখন আমাদের ঘরে ঢুকে বসে থাকতো। আমাকে সে একবার সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্ট ও করেছে আমার স্বামী শাশুড়ি সবটাই জানে কিন্তু তারাও এর প্রতিবাদ করেনি কারণ তারা টাকার কাছে বন্দী। পৃথিবীতে টাকাই সব আইন নাই। আজ আমি হেরে গেলাম এই পৃথিবীর কাছে টাকার কাছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরও দেখুন